কাউখালী নাইল্যাছড়িতে রবি’র টাওয়ার আছে নেটওয়ার্ক নাই, বিদ্যুৎ না থাকলে নেটওয়ার্ক থাকে না

মোঃ ইউসুফ,
রাঙ্গামাটি জেলার কাউখালী ৪নং কলমপতি ইউনিয়নের নাইল্যাছড়ি বাজার মাসজিদের রবি’র টাওয়ার টি কয়েক মাস ধরে এ সমস্যা, রবি কর্তৃপক্ষ সমস্যা সমাধানে স্থায়ী কোন পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ রবি’র গ্রাহকদের।

নিবন্ধিত দীর্ঘদিনের পুরোনো বাজারে মোবাইল অপারেটর কোম্পানি রবি’র নেটওয়ার্ক বিপর্যয়ে গ্রাহকরা অতিষ্ট হয়ে উঠেছে কাউখালী বাসী।
লোডশেডিং বা বিভিন্ন কারণে এলাকায় বিদ্যুৎ না থাকলে রবি’র নেটওয়ার্ক ডাউন হয়ে যায়। এতে গ্রাহক ভোগান্তি চরমে পৌঁছে বলে অভিযোগ করেছে রবি’র এ্যারটেল গ্রাহকরা। বিগত সময়ের তুলনায় গত কয়েক মাস যাবত কাউখালী নাইল্যাছড়িতে রবি-এয়ারটেল,নেটওয়ার্কের কল আদান প্রদান এবং ডাটা (ইন্টারনেট) সার্ভিসে এ রকম সমস্যা প্রকট আকারে দেখা দিয়েছে। এই কারনে চরম বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন গ্রাহকরা।
মোবাইল ফোনের নেটওয়ার্ক বিপর্যয় চরম আকারে চলে যাওয়ায় সব ধরণের মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। প্রথম রমজান থেকে এই সমস্যা বিদ্যমান।
জানা গেছে, রবি নেটওয়ার্ক সমস্যার কারণে অনেকে রবি-এ্যারটেল সিমে সরকারী অনুদানের ২৫০০ টাকা অনেক সিমে ঢুকতে পারেননি। তবে তুলনামুলক কিছুটা হলেও সচল ছিল টেলিটক। আর খুবই খারাপ ছিল রবি এ্যারটেল নেটওয়ার্ক।
কাউখালীতে বিপুল সংখ্যক রবি এ্যারটেল গ্রাহক থাকলেও নেই কনো কাস্টমার কেয়ার। এসব কারনে
রবির গ্রাহকরা ভোগান্তির চরম পর্যায়ে আছে। রবি ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক বিপর্যয়, থ্রী-জি 4G-5Gজির নামে ইন্টারনেটের মন্থর গতি সহ নানামুখী প্রতারণা অব্যাহত রয়েছ।

প্রায়ই মানুষ প্রথম থেকে রবি নাম্বার ব্যবহার করলেও সম্প্রতি রবির ভোগান্তিতে অতিষ্ট হয়ে পড়েছে সাধারণ গ্রাহক।

কাউখালীতে অনেক শিক্ষার্থীদের অভিযোগ,গত দুইদিন ধরে রবি গ্রাহকরা চরম দুর্ভোগে আছে। নিয়মিত ইন্টারনেট ব্যবহার করতে না পারায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, ইউটিউব এবং অনলাইন সংবাদপত্র পড়াসহ ভিবিন্ন সংক্রান্ত তথ্য পেতে নানামুখী সমস্যায় আছে।

রবির নেটওয়ার্ক বিপর্যয়ের ফলে কোন কাজকর্ম করাই সম্ভব হচ্ছে না। ফলে এখন অন্য অপারেটর ব্যবহার করার চিন্তা করতে হচ্ছে।
নেটওয়ার্ক বিপর্যয়ের ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে রবির কাস্টমার কেয়ারে লাইনে থাকা কথা বলতে ছাইলে লাইন না পেয়ে টাকা গুলো কেটে নেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ অহরহ।

কাউখালীর নাইল্যাছড়িতে রবির এই চরম নেটওয়ার্ক বিপর্যয় অব্যাহত থাকলে অতিশীঘ্রই গ্রাহক হারাতে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করা হচ্ছে।