খাতুনগঞ্জে পেঁয়াজের আড়ত সরব হল ১১ ঘণ্টা পর

আব্দুল করিম, চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি:
১১ ঘণ্টা বন্ধ রাখার পর পেঁয়াজের আড়ত খুলেছেন খাতুনগঞ্জ এলাকার ব্যবসায়ীরা। ভোগ্যপণ্যের বৃহত্তম পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের প্রতিবাদে আজ সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) সারাদিন আড়ত বন্ধ রাখার পর সন্ধ্যায় আবারও বেচাকেনা শুরু করেন পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা।ব্যবসায়ী নেতা মোহাম্মদ ইদ্রিস জানান, খাতুনগঞ্জে পেঁয়াজের আমদানিকারক নেই। আমদানিকারকদের কমিশনের ভিত্তিতে পেঁয়াজ বিক্রি করে আড়তদাররা। অভিযান চালাতে হবে আমদানিকারকদের ওপর।’

দিনভর আড়ত বন্ধ রাখলেও সন্ধ্যা ৬টার দিকে বেচাকেনা শুরু করেছেন বলে জানান তিনি।চাক্তাই-খাতুনগঞ্জ আড়তদার ও সাধারণ ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, কিছু আড়তদার কারো সঙ্গে কোনো আলোচনা না করেই ঘোষণা ছাড়া আড়ত বন্ধ রেখে বিক্ষোভ করেছে। শ্রমিকেরাও ঠেলাগাড়ি রাস্তায় দাঁড় করিয়ে দিয়ে অবরোধে সমর্থন যুগিয়েছিল। ১২টার পর আমরা গিয়ে রাস্তা থেকে সরিয়ে দিই। এতে যানবাহন চলাচল শুরু হয়।ব্যবসায়ী মিন্টু সওদাগার জানান, মোবাইল কোর্ট পরিচালনার নামে হয়রানি না করার জন্য জেলা প্রশাসককে জানাবেন চট্টগ্রাম চেম্বার অফ কমার্সের সভাপতি মাহবুবুল আলমের এমন আশ্বাসের ভিত্তিতে আমরা আবারও আড়ত খুলেছি।প্রসঙ্গত, সোমবার সকাল থেকে পেঁয়াজের শতাধিক আড়ত বন্ধ রেখে ব্যবসায়ীরা খাতুনগঞ্জ সড়কে বিক্ষোভ করেন। এর আগে রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) জেলা প্রশাসন ভ্রাম্যমাণ আদালত মূল্য বৃদ্ধি ও মূল্য তালিকা না রাখার অভিযোগে প্রায় ১০টি আড়তকে মোট ৭৭ হাজার টাকা জরিমানা করে।