লক ডাউন কী? এ সময় কি করবেন, কি করবেন না

আব্দুল করিম, চট্টগ্রামঃ
করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে সারাবিশ্বের বিভিন্ন স্থানের ন্যায় বাংলাদেশের একাধিক জায়গায় লক ডাউন শুরু করেছে সরকার। অনেকেই জানেন না, লক ডাউন মানে কী? লক ডাউন হলে কী করবেন, কী করবেন না?

লক ডাউন ঘোষণা করা হলে ঘোষিত নির্ধারিত সময় থেকে জরুরি পরিষেবা ছাড়া সমস্ত অফিস, দোকানপাট এবং গণপরিবহণ ব্যবস্থা বন্ধ থাকে। কেউ এই নির্দেশিকা মেনে না চললে, তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়। এই ধরণের পরিস্থিতিতে পড়লে আপনি যা করবেন, যা করবেন না- নিচে তা বিস্তারিত দেয়া হল।

১. অত্যন্ত দরকারি না হলে বাড়ি থেকে বেরোবেন না। অর্থাৎ নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী যেমন চাল-ডাল, সবজি, মাছ-মাংস কেনা, ওষুধ কেনা, জরুরি পরিস্থিতিতে চিকিৎসক বা হাসপাতালে যাওয়া।

২. লক ডাউনের মধ্যে রাস্তায় বেরিয়ে পুলিশের সামনে পড়লে যদি উপযুক্ত কারণ দেখাতে না পারেন তাহলে প্রশাসন কড়া ব্যবস্থা নিতে পারে।

৩. আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যাবেন না। ঘনিষ্ঠ হোন বা দূর সম্পর্কের, আত্মীয়ের বাড়ি বয়কট করুন।

৪. গুজবে কান দেবেন না। এই পরিস্থিতিতে নানা গুজব ছড়ায়। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে গুজব ছড়ানো এখন সহজ হয়ে গেছে। একেবারে বিশ্বস্ত সূত্র বা সরকারি বিজ্ঞপ্তি ছাড়া কোনও কথা বিশ্বাস করবেন না। লক ডাউনের মধ্যে ঔষধের দোকান, মুদি দোকান, সবজির দোকান ও মাছ বাজার খোলা থাকবে। সাধারণ দিনের মতোই মিলবে ডিম ও দুধ।

৫. অসুস্থতা অর্থাৎ জ্বর, সর্দি, কাশি, গলা ব্যথা বা শ্বাসকষ্টের মতো উপসর্গ দেখা দিলে কাছাকাছি হাসপাতালে যান। নিজেকে একটি ঘরে বন্দি রাখুন। মাস্ক ব্যবহার করুন। ঘণ্টায় অন্তত ১ বার করে সাবান বা এলকোহলযুক্ত হ্যান্ডস্যানিটাইজার দিয়ে ২০ সেকেন্ড ধরে হাত ধোবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here