মুক্তিপণের জন্য আয়াতকে অপহরণ করে সাবেক ভাড়াটিয়া; চিৎকার করায় শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়!

মুক্তিপণের জন্য আয়াতকে অপহরণ করে সাবেক ভাড়াটিয়া, বেশি চিৎকার করায় শ্বাসরোধ করে হত্যা করে আবির আলী নামক সাবেক ভাড়াটিয়া! 😥😥
সিসিটিভি ফুটেজে শনাক্ত করে আবিরকে গতকাল বৃহস্পতিবার আটক করা হয়েছে। সে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।
চট্টগ্রামের ইপিজেড থানাধীন বন্দরটিলা এলাকা থেকে নিখোঁজ শিশু আয়াতের খণ্ডবিখণ্ড লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিখোঁজের ১০ দিন পর শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) ইপিজেডের আকমল আলী রোড এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পিবিআই চট্টগ্রাম মেট্রোর পুলিশ সুপার নাঈমা সুলতানা।

তিনি পূর্বকোণকে বলেন, মুক্তিপণের জন্য শিশু আয়াতকে অপহরণ করে আবির আলী নামের তাদের এক সাবেক ভাড়াটিয়া। সিসিটিভি ফুটেজে শনাক্ত করে আবিরকে গতকাল বৃহস্পতিবার আটক করা হয়েছে। সে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আবির জানিয়েছে- মুক্তিপণের উদ্দেশ্যে ঘটনার দিন বিকেলে আয়াতকে অপহরণের চেষ্টা করে সে। এ সময় চিৎকার করলে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। পরে ওই শিশুর লাশ নদীতে ফেলে দেওয়া হয়।

এর আগে ১৫ নভেম্বর বিকেল সাড়ে ৩টায় নগরীর ৩৯ নম্বর ওয়ার্ডের নয়ারহাট বিদ্যুৎ অফিসের সামনে থেকে নিখোঁজ হয় সে। একইদিন রাতে ইপিজেড থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন আয়াতের বাবা সোহেল রানা।
সূত্রঃ পূর্বকোণ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here