শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর - ২০২১
শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১
আরও

    পিএমখালীর সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মতিউল ইসলাম’র বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদ!

    স্টাফ রিপোর্টারঃ
    এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ইয়াবা মামলার আসামী চোর বাহিনীর প্রধান হুমায়নের অত্যাচারে এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে পড়লে গত ২০২০ সালে এলাকার জনসাধারণ মিলে হুমায়নকে গণধোলাই দেয়। গণধোলাই খেয়ে এলাকার কিছু নিরপরাধ লোকজন সহ জড়িয়ে এবং মতিউল ইসলাম মতির বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা দেয় । সেই মামলায় গতবছর মতিউল স্ব-ইচ্ছায় আদলতে আত্মসমর্পণ করলে মাননীয় আদালত মতিউলকে কারাগারে পাঠান। ছয়দিন পর কারাগার থেকে মতিউল জামিনে মুক্ত হয়। সেই থেকে আজ অবধি হুমায়নের মিথ্যা মামলায় মতিউল আদালতে হাজিরা দিয়ে আসছিল। কিন্তু গত ১৪ তারিখ আদালতে হাজিরা দিতে গেলে পুলিশের তদন্ত রিপোর্টের ভিত্তিতে শুনানি করে CW মূলে মাননীয় আদালত মতিউলকে জেলে পাঠান এবং বাকীদেরকে স্থায়ী ভাবে ছাড় দিয়ে দেন।

    উল্লেখ্য বাংলাদেশের স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিকে কক্সবাজার এর পিএমখালীতে মতিউল ইসলাম মতির নেতৃত্বে কঠোর হাতে দমন করে রাখতে সক্ষম হয়। সেই স্বাধীনতা বিরুধি বিএনপি জামাতের এজেন্ট হুমায়ন ও তার ভাই নেওয়াজ মিলে হয়রানিমূলক মিথ্যামামলা দেয়। সেই মামলায় আদালতে হাজিরা দিতে গেলে পুলিশের তদন্ত রিপোর্টের ভিত্তিতে মাননীয় আদালত মতিউলকে কারাগারে পাঠান। কিন্তু সেই অপশক্তির প্রধান হুমায়ন ও নেওয়াজ তাদের ফেইসবুকে মটর চাইকেল চোরির দায়ে কারাগারে পাঠিয়েছে এমন মিথ্যা অপবাদ দিয়ে মতিউলের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। যেটি সম্পূর্ণ বানোয়াট ভিত্তিহীন। এর সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্ততা নেয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন এলাকার সচেতন মহল।

    এলাকার সচেতন মহলের দাবি, পিএমখালী থেকে মতিউলের মতো বঙ্গবন্ধুর আদর্শিক নেতা গুলোর বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে তাদেরকে দমিয়ে রাখতে পারলে স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির এজেন্ট হুমায়ন ও তার ভাই নেওয়াজ গন মাথানাড়া দিয়ে উঠতে পারবে এবং এলাকায় তাদের ত্রাস রাজত্ব করতে পারবে। আমরা (এলাকাবাসী) প্রতিনিয়ত দেখতে পাচ্ছি হুমায়ন ও তার ভাই নেওয়াজ বিদেশে বসে প্রতিনিয়ত মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নামে ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শিক নেতাকর্মীদের নামে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও প্রশাসনের প্রতি আবেদন জানাচ্ছি হুমায়ন ও নেওয়াজের মতো যারা স্বাধীনতা বিরোধী রয়েছে তাদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেয়া হোক।

    9,705FansLike
    36FollowersFollow