পাঠকের কৌতূহল জুড়ে রেজা খসরু-র কাব্যগ্রন্থ ‘মস্তিষ্কের কফিশপে’

মুহাম্মদ আবু আবিদঃ
লেখক মানেই মুখভর্তি গোঁফ-দাড়ি থাকবে, সে ধারণা বদলিয়েছে অনেক আগেই। বিভিন্ন পেশার মানুষেরা যেমন পাঠকের খাতায় নাম লিখিয়েছেন,ঠিক তেমন ভাবে পেশাজীবীরা তাদের পেশা ঠিক রেখেই বাস্তবধর্মী লেখা লিখছেন। কোন সময় তা পত্রিকার ফিচারে কিংবা কলামে। কিন্তু এমন যদি হয়, দেশের একজন সাধারণ মানুষ সরাসরি কাব্যগ্রন্থ লিখে সাহিত্যের রাজ্যে পর্দাপন করতে যাচ্ছেন ,তাহলে তো সাধারণ পাঠকের মনে ব্যপক কৌতূহল সৃষ্টি হবেই।

ঠিক তা-ই ঘটেছে। পড়াশোনা শেষ করেছেন বেশিদিন হয়নি। ছোটবেলা থেকেই বইয়ের প্রতি আলাদা আর্কষন ছিল, তার। বইয়ের পোকা হিসেবে বন্ধুমহলে তার রয়েছে বেশ সুনাম। ছেলেবেলায় সবাই যখন খেলাধুলা নিয়ে ব্যস্ত থাকতেন, তিনি তখন পাঠ্যবইয়ের পাশাপাশি পড়তেন ইতিহাস ও ঐতিহ্যের নানান রকম বই। গ্রন্থের মধ্যেই যেন থাকতে বেশি পছন্দ করতেন তিনি।

রেজা খসরু। আর দশ-পাঁচ জনের মতোই পড়াশোনা শেষ করে চাকরি খুঁজছেন। ছোটবেলা থেকেই বই প্রিয় এই মানুষ টা লিখে গিয়েছেন অজস্র কবিতা। তা থেকে বাছাই করেই মোট ৫০ টা ছোট কবিতা নিয়ে আগামী জানুয়ারি তে ধূমকেতু প্রকাশনী থেকে প্রকাশ হচ্ছে তার কাব্যগ্রন্থ “মস্তিষ্কের কফিশপে”। বইটি প্রকাশের আগেই পাঠকের কাছ থেকে ব্যাপকভাবে ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। এ গ্রন্থের সবচেয়ে আকর্ষণীয় বিষয় টি হল – বইটির নাম অর্থাৎ মস্তিষ্কের কফিশপে।

 

‘মস্তিষ্কের কফিশপে’ গ্রন্থটির লেখক রেজা খসরু এ সম্পর্কে বলেন, “আমার ভেতর একটি হাহাকার বসত করে; প্রেম ও দ্রোহের।ক্ষুদ্র ও সাধারণের আধুনিক অথচ প্রাগৈতিহাসিক আকাঙ্ক্ষা ও হতাশা এই হাহাকার সৃষ্টি করেছে।
স্বপ্ন ফেরী করা মানুষগুলোর স্বপ্ন,অন্যায় অবিচার, বেকারত্বের অভিশাপ, সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় অবক্ষয়, নষ্টামি ও প্রতারণা, ঘৃণা ছুড়াছুড়ি, রাজনীতি ও হয়রানির নগ্ন নগ্ন খেলা।
সর্বোপরি হাজারো অসঙ্গতির অব্যক্ততা আমার ভিতরটা জাগিয়ে তোলে।সাধারণের কন্ঠস্বর আমার কলম ছুঁয়ে পরে।আমি কেবল কালের সাক্ষী, কোন কবি নই।কালের অভিযোগ ও অভিশাপ, প্রেম ও বিরহের দীর্ঘশ্বাস আমার ফুসফুস ছিঁড়ে বেরিয়ে আসে।আমি কবি হতে আসিনি।মহাকালের প্রতিবিম্ব হয়ে এসেছি।
আমাকে বরণ করুন। নয়তো ক্ষমা করুন।”

সব তো জানালাম, কিন্তু ‘মস্তিষ্কের কফিশপে’ কাব্যগ্রন্থ টা আসলে কি নিয়ে??? দাঁড়ান, আগে প্রি-অর্ডার টা দিয়ে রাখি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here