শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর - ২০২১
শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১
আরও

    ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজদের ফিরে পেতে অধীর আগ্রহে সমুদ্র পাড়ে স্বজনরা!

    মুহাম্মদ দিদার হোসাইন,
    বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ
    বঙ্গোপসাগরে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলাধীন চাম্বল এলাকার ৬ টি ফিশিং ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজদের ফিরে পেতে অধীর আগ্রহে বৃষ্টিত ভিজে সমুদ্র পাড়ে খোলা আকাশের নীচে বসে আছে স্বজনরা।

    প্রবল ঝড়ের কবলে পড়ে ৬টি ফিশিং ট্রলার ডুবে যাওয়ার ঘটনায় নিখোঁজ হওয়া ৬ জেলের মধ্যে এক জনের মৃত্যুদেহ উদ্ধার করা হলেও বাকী ৫ জেলের এখনো পর্যন্ত খোঁজ মেলেনি। সন্ধান মেলেনি ডুবে যাওয়া ৬ ফিশিং ট্রলারেরও।

    স্বজদের আর্তনাতে ভারী হয়ে উঠেছে বাঁঁশখালীর পুরো আকাশ। নিখোঁজ তিনদিন পার হলেও। এখনো আজ বৃহস্পতিবার এই রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত কোন খোঁজ মেলেনি।
    এব্যাপারে বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুজ্জামান চৌধুরী বলেন, ট্রলার ডুবির ঘটনায় এই পর্যন্ত একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, বাকী আরো ৫ জেলেসহ ডুবে যাওয়া ৬ ফিশিং ট্রলারের আজ পর্যন্ত কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি, কোষ্টগার্ড সদস্য ও স্থানীয় বোট মালিকরা নিখোঁজদের উদ্ধারে কাজ করে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

    তাছাড়া উদ্ধার হওয়া লাশটি কাফন দাফনের জন্য তার পরিবারকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিশ হাজার টাকা নগদ প্রদান করেছেন বলে জানান সাইদুজ্জামান চৌধুরী।

    এব্যাপারে ভোট মালিক সমিতির সভাপতি মুহাম্মদ হেফাজতুল ইসলাম বলেন,গত মঙ্গলবার ভোরে চাম্বলের বাংলা বাজার ঘাট থেকে বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরার উদ্দেশ্যে রওনা দিলে সকাল ৮টার দিকে হেফাজতুল ইসলামে মালিকানাধীন এফবি মুশফিক, মোহাম্মদ ফারুকের মালিকানাধীন একটি ফিশিং ট্রলার, কেফায়েত উল্লাহ মালিকানাধীন আল্লাহর দান ফিশিং ট্রলার, নন্না মিয়ার মালিকানাধীন আরেকটি ফিশিং ট্রলার, মৌলভী আবুল খায়েরের মালিকানাধীন একটি ফিশিং ট্রলার এবং আনিস মাঝির একটি ফিশিং ট্রলার এখনও নিখোঁজ রয়েছে।নিখোঁজরা হলেন, পশ্চিম চাম্বল এলাকার মৃত আহমদ উল্লাহর পুত্র আনিস মাঝি(৪৫), মৃত নুর মিয়ার পুত্র মোহাম্মদ আলী(৩৮), শীলকূপ এলাকার মৃত মফিজের পুত্র মিয়া(৩২), আস্করিয়া পাড়ার আমির হোসেনের পুত্র সাজ্জাদ হোসেন, কুতুবদিয়া এলাকার ছৈয়দ আলম(৪৫)।

    তবে শীলকূপ এলাকার হোছাইন আহমদের পুত্র আবদুর সবুরকে নোয়াখালীর হাতিয়ার সাঈদ মাঝির মালিকানাধীন ফিশিং বোট মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে সাগর থেকে উদ্ধার করে। বোট মাঝি সাঈদ চট্টগ্রাম ট্রিবিউনকে জানান, বর্তমানে আবদুর সবুর তার বাড়িতে অবস্থান করছেন।

    9,705FansLike
    36FollowersFollow