কাপ্তাইয়ে অনার্স পড়ুয়া ছাত্রী অপহরনের অভিযোগে মহিলা আটক

কাপ্তাই প্রতিনিধি:
অনার্স পড়ুয়া এক ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগে পিডিবির অবসর প্রাপ্ত এক মহিলা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কাপ্তাই থানায় একটি অপহরন মামলা হওয়ার সংবাদ পাওয়া গেছে।

জানা যায় কাপ্তাই উপজেলার ৫ নং ওয়গ্গা ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের কুকিমারা পাড়া এলাকার বাসিন্দা অংসুপ্রু মারমার অনার্স পড়ুয়া মেয়ে সুইমাথুই মারমা (২৩) তিন মাস পূর্বে অর্থাৎ মার্চ মাসে কুকিমারা পাড়া হতে অপহরন হয়েছে বলে পরিবারের ও এলকা বাসীর দাবি, এমতাবস্থায় ৬ জুলাই প্রভা দেবী চাকমা ( ৬০) নামের এক মহিলা কুকিমারা এলাকায় বৌদ্ধ মন্দিরে ধর্ম পালনে গেলে তাকে সন্দেহ করে মেয়ের পরিবার ও এলাকাবাসী আটকে রেখে জিঙাসাবাদ করে ওই দিনই তারা প্রভা দেবীকে কাপ্তাই থানায় সোপর্দ করে। পরবর্তী কাপ্তাই থানায় হাজির হয়ে মেয়ের বাবা অংসুপ্রু বাদী হয়ে একটি অপহরন মামলা করেন ৭ জুলাই।

এব্যাপারে বাদী অংসুপ্রু জানান আমার মেয়ে সুইমাইথুই মারমা (২৩) রাঙামাটি সরকারী কলেজের অনার্স প্রথম বষের্র ছাত্রী, সে গত ২২/৩ /২০২০ ইং তারিখে বড়ই ছড়িতে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি, এ বিষয়ে আমি অজ্ঞাত নামে কাপ্তাই থানায় ২৫ মার্চ নিখোঁজ সংক্রান্ত একটি সাধারণ ডায়েরি করি, যার ডাযেরী নম্বর – ৮৯৩ তারিক ২৫/৩/২০২০ ইং। অপর দিকে ৭ জুলাই কাপ্তাই থানায় বিবাদী শুভ মারমা (৩৫) ও প্রভা দেবী চাকমা (৬০) যে দুইজনের বিরুদ্ধে কাপ্তাই থানায় অভিযোগ করেছি তারা দুজনেই কিছু দিন পর- পর কুকিমারা বৌদ্ধবিহারে ও আমার বাড়িতে আসা-যাওয়া করতো, ঐ সুবাদে তাদেরকে আমার সন্দেহ হওয়ায় আমার মেয়ে নিখোঁজ সংক্রান্ত বিষয়ে তাদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করি।

এ ব্যাপরে কাপ্তাই থানার ওসি তদন্ত মোঃ আতিকুল ইসলাম এ প্রতিনিধিকে বলেন মেয়ের বাবা থানায় নারী – ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ ( সংশোধনী ২০০৩) এর ৭/৩০ / ধারায় থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ১। ৭ জুলাই ২০২০ ইং। আটককৃত প্রভা দেবী চাকমাকে ৮ জুলাই বুধবার বেলা ১২ সময় রাঙামাটি জিলা জজ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এ দিকে প্রভা দেবী চাকমা এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এই প্রতিনিধিকে জানিয়েছেন রাঙামাটি পি,ডি,বিতে দপ্তরে উচ্ছমান হিসাব সহকারী পদে চাকুরী করতেন, বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত হয়েছেন, বাদীর অভিযোগের বিষয়ে তিনি নিজেকে নির্দোষ দাবী করেন।এবং বলেন সরলতার অদ্ভূত প্রতিদানে সে ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here