কক্সবাজারে ইভটিজিংয়ের জেরে রিক্সাচালককে ছুরিকাঘাত তরুণীর!

সাজন বড়ুয়া সাজু, কক্সবাজার:
কক্সবাজার শহরের থানা সংলগ্ন পোস্ট অফিস সড়কে ইভটিজিংয়ের জেরে এক তরুণীর ছুরিকাঘাতে এক রিকশাচালক আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় হামলাকারীকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার (৩০ মে) সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।
আটক তরুণীর দাবি, তিনি পারিবারিক সমস্যার কারণে ডিপ্রেশনে আছেন। রিকশাচালক ইভটিজিংমূলক কটূক্তি করায় তাকে ছুরিকাঘাত করেছেন।

হামলাকারী তরুণী নাম পাপড়ি ঘোষ (২৬) শহরের ঘোনার পাড়ার (৯ নম্বর ওয়ার্ড) শংকর ঘোষের মেয়ে। তিনি চট্টগ্রাম পলিটেকনিকেল কলেজের সাবেক শিক্ষার্থী। আহত রিকশাচালক মো. সরওয়ার (৩৭) রামু উপজেলার চাকমারকুলের পূর্ব মোহাম্মদ পুরের মৌলভি শাহজাহানের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রিকশাচালক একজন নারী যাত্রী নিয়ে ওই পথ দিয়ে যাচ্ছিলেন। এর মধ্যে এক তরুণী রিকশার সামনে এসে দাঁড়ান। এরপর কিছু বুঝে ওঠার আগেই ব্যাগ থেকে ছুরি বের করে রিকশাচালকের পেটের পাশে ছুরিকাঘাত করেন। পরে লোকজন ওই তরুণীকে ঘিরে ফেলে এবং পুলিশকে ফোন দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তরুণীকে ছুরিসহ আটক করে এবং আহতকে চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠায়।

হামলাকারী তরুণী পাপড়ি ঘোষ জানিয়েছেন তিনি পারিবারিক সমস্যার কারণে ডিপ্রেশনে আছেন। এর মধ্যে রিকশাচালক তাকে কটূক্তি করেছেন। তাই ছুরিকাঘাত করেছেন। সঙ্গে ছুরি কেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি চুপ ছিলেন।

 

তবে স্থানীয়রা বলছেন, রিকশাওয়ালার কোনো দোষ নেই। তরুণীটি দেখতে ভালো পরিবারের ভদ্র-শিক্ষিত মনে হলেও তিনি মানসিকভাবে স্বাভাবিক না। তিনি কোনো কথা না বলেই রিকশাটি দাঁড় করিয়ে কিছু বুঝে ওঠার আগেই রিকশাওয়ালাকে ছুরিকাঘাত করেন।

কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মুনিরুল গিয়াস বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, হামলাকারী তরুণী মানসিকভাবে স্বাভাবিক নন। তরুণী স্বীকার করেছেন, পারিবারিক কারণে মানসিক অবসাদে ভুগছেন। এছাড়া রিকশাচালক তাকে কটূক্তি করেছেন বলেও দাবি করেছেন। আহত রিকশাচালককে চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে, কেন হামলা করা হয়েছে। প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here