আসন্ন ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে চান সমাজকর্মী কেফায়েত উল্লাহ

এম এ সাত্তার, ককসবাজার:
আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ককসবাজার সদরস্থ ৮ নং পিএমখালী ইউনিয়ন পরিষদ’র চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হচ্ছেন শিক্ষানুরাগী, সমাজকর্মী, ঠিকাদার মোঃ কেফায়েত উল্লাহ।প্রার্থী হিসেবে পিএমখালী ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে আলোচনার শীর্ষে তরুণ এই সমাজসেবক।

সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ কেফায়েত উল্লাহ পিএমখালীর ছনখোলা ২ নং ওয়ার্ড মৃত আলহাজ্ব মোহাম্মদ সুলতান এর পুত্র। পিএমখালী ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মাস্টার আব্দুর রহিম (বার) এর ভাগিনা।সে ছায়া চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

নির্বাচনী মাঠে একেবারে নতুন মুখ হলেও তিনি সবার পরিচিত মুখ।এলাকার যে কোন মানুষ সমস্যায় পড়লে ছুটে যান তিনি।ইউনিয়নের সকল বয়সী ও শ্রেনী পেশার মানুষের পরিচিত ও আপনজন কেফায়েত এবার ইউনিয়ন সভাপতি হতে আগ্রহ প্রকাশ করেন।

তিনি বিশ্বাস করেন শুধু ব্যক্তিগত সহযোগীতা দিয়ে সমাজ ও সমাজের মানুষের সব সমস্যা সমাধান করা সম্ভব না। তাই বৃহৎ পরিসরে সমাজের সার্বিক উন্নয়ন করতে এবারের নির্বাচনে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী। সমাজ সেবক মোঃ কেফায়েত উল্লাহ এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে এবার সরাসরি চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হতে মাঠে নামার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

কেফায়েত চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে সকল কর্মকান্ডে জনগনের অংশ গ্রহন ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করাসহ আধুনিক ইউনিয়ন গঠন করতে চান।একইসাথে মাদক, সন্ত্রাস ও দুর্ণীতি প্রতিরোধসহ জনসচেতনতামুলক কর্মসুচি গ্রহন করতে চান তিনি।
এলাকার বিভিন্ন বয়সের মানুষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, দক্ষ সংগঠক ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বের কারনে তারা এবার কেফায়েতকে ভোট দিতে চায়। পিএমখালী ইউনিয়নের উন্নয়নের জন্য তার বিকল্প নাই।ইতিমধ্যে ইউনিয়নের যুবসমাজ,ছাত্রসমাজ সহ সাধারণ জনগণ এবার দক্ষ সংগঠক কেফায়েতের পক্ষে সকলকে ঐক্যবদ্ধ করতে আগাম মাঠে নামার ঘোষণা দিয়েছে।

শুধু যুব সমাজ নয়, ছাত্র শিক্ষক, শ্রমিক জনতা, বৃদ্ধ বণিতাসহ সকল শ্রেনী-পেশার মানুষ এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কেফায়েতকে চেয়ারম্যান হিসেবে চায়।

নির্বাচনে অংশগ্রহন প্রসঙ্গে মোঃ কেফায়েত উল্লাহ বলেন,সারাদেশের মধ্যে উন্নয়নের রোলমডেল হবে পিএমখালী ইউনিয়ন। সন্ত্রাস,দূর্নীতি মাদক মুক্ত মডেল ইউনিয়ন হবে পিএমখালী।আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি সম্পন্ন ডিজিটাল ইউনিয়ন গঠনসহ সকল কর্মকান্ডে জনগনের অংশগ্রহন ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা আমার লক্ষ্য।

সৎ যোগ্য ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে সর্বদা সোচ্চার কেফায়েত আরো বলেন,দল মত নির্বিশেষে সবাই আমাকে ভোট দিলে অবশ্যই আমি পিএমখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবো।আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে অত্র ইউনিয়নে উন্নয়নের নব দিগন্ত সৃষ্টি হবে বলে প্রত্যাশা করছেন ইউনিয়নের বিভিন্নস্তরের মানুষ। পিএমখালী ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়নে পরিণত করতে চাই,সেইসাথে গণমানুষের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে সহযোগী হতে চাই।ইউনিয়নের মানুষ আমাকে চাইলে ইনশাআল্লাহ আমি অবশ্যই নির্বাচন করবো এবং বিজয়ী হবো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here