আমবাগানে যুবক খুনের ঘটনায় বাবা ও তিন ছেলে গ্রেফতার!

মোহাম্মদ রাকিবুল ইসলাম চৌধুরী, চট্টগ্রাম:
চট্টগ্রাম নগরের আমবাগান এলাকায় ফুটবল খেলার সময় ছুরিকাঘাতে যুবক খুনের ঘটনায় মূল অভিযুক্ত আমির হোসেন ও তাঁর তিন ছেলেকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। গত শনিবার বিকেলে ঢাকার কেরানীগঞ্জ ও শরীয়তপুরের নড়িয়ায় অভিযান চালিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

কিশোর গ্যাং পরিচালনা, রেলওয়ের জায়গায় আধিপত্য বিস্তারসংক্রান্ত নানা দ্বন্দ্বের জেরে মো. হানিফ নামের ওই যুবককে খুন করায় বলে র‍্যাব-৭

এর প্রধান লে. কর্নেল এম এ ইউসুফ জানান। গ্রেপ্তার চারজন হলেন আমির হোসেন (৫০) এবং তাঁর তিন ছেলে মো. সোহেল (২১), মো. হাসান (১৯) ও মো. সোহাগ (২৩)। গ্রেপ্তারের পর গতকাল রোববার তাঁদের চট্টগ্রামে আনা হয়। তাঁরা নগরের আমবাগান এলাকার বাসিন্দা।

র‍্যাব জানিয়েছে, হত্যাকাণ্ডের পর আমির ও তাঁর তিন ছেলে চট্টগ্রাম নগরের কর্নেলহাট এলাকায় এক আত্মীয়ের বাসায় আশ্রয় নিয়েছিলেন। সেখান থেকে আমির ও সোহাগ ঢাকার কেরানীগঞ্জে পালিয়ে যায়। সোহেল ও হাসানকে শরীয়তপুরের নড়িয়া থেকে গ্রেপ্তার করা যায়।

৮ নভেম্বর নগরের খুলশী থানার আমবাগান তরুণ সংঘের মাঠে ফুটবল খেলা চলাকালীন মো. হানিফ (২১) নামের এক যুবককে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাত করে খুন করা হয়। একই সময়ে ছুরিকাঘাতে আহত হন তার বড় ভাই অনীক। হানিফ নগরের আমবাগান শহীদ মিনার কলোনির বাসিন্দা মো. আলাউদ্দিনের ছেলে।

র‍্যাব কর্মকর্তা এম এ ইউসুফ প্রথম আলোকে বলেন, আমির হোসেনের বাড়ি শরীয়তপুরে। তিনি চট্টগ্রাম শহরের আমবাগান এলাকায় বসবাস করেন। তাঁর বিরুদ্ধে ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে তিনটি মামলা রয়েছে। এখন এলাকায় প্রভাব বিস্তার করতে আমির। তিন ছেলেকে ব্যবহার করে একটি কিশোর গ্যাং পরিচালনা করতেন। হানিফ ও তাঁর ভাই অনীকের নেতৃত্বেও একটি কিশোর গ্যাং ছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here